ওয়েব ডেভলপমেন্ট, টিউটোরিয়াল

ওয়ার্ডপ্রেস পরিচিতি ও ব্যবহারের সুবিধা

introducing-wordpress-and-usage-advantage


ওয়ার্ডপ্রেস কী?

ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্লগ পাবলিশিং অ্যাপ্লিকেশন। ব্লগিং প্ল্যাটফর্মের পাশাপাশি এটি একইসাথে একটি শক্তিশালী কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম বা সিএমএস, যা পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল দিয়ে তৈরিকৃত ওপেন সোর্স ব্লগিং সফটওয়্যার। এর মানে এটি একটি ওপেন সোর্স প্রোডাক্ট। এটি ব্যবহার করার জন্য টাকা দিয়ে স্ক্রিপ্টটি কিনতে হয় না। ম্যাট মুলেনওয়েগ ২০০৩ সালের ২৭শে মে এটি প্রাথমিকভাবে প্রকাশ করেন। জানুয়ারী ২০১৮ পর্যন্ত ওয়ার্ডপ্রেস ৪.৯.১ সংস্করণ বের হয়েছে।

ওয়ার্ডপ্রেসের মাধ্যমে কোন ধরণের পিএইচপি, মাইএসকিউএল বা এইচটিএমএল বা প্রোগ্রামিং জ্ঞান ছাড়াই একটি প্রোফেশনাল মানের ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব। ব্লগিং প্লাটফর্ম হিসেবে যাত্রা শুরু হলেও এখন ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে প্রায় সবধরনের সাইটই বানানো সম্ভব।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার সুবিধা কি?

সফটওয়্যারটি ওপেনসোর্স এবং বিনামূল্যে পাওয়া যায়। এছাড়াও বিনামূল্যে থীম, প্লাগইন পাওয়া যায়। তবে ওয়ার্ডপ্রেসের প্রিমিয়াম থিম এবং প্লাগইনও আছে। এগুলো ব্যবহার করতে হলে কিনতে হবে। কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (সিএমএস) হবার ফলে যেকোন তথ্য সহজেই পরিবর্তন, পরিবর্ধন, সংযোজন বা বিয়োজন করা যায়। এছাড়াও ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার বান্ধব, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশেন ফ্রেন্ডলি ইত্যাদি।

ওয়ার্ডপ্রেস কেন?

আমরা মূলত স্ট্যাটিক ওয়েবসাইট এবং ডাইনামিক ওয়েবসাইট এই দুই ধরণের ওয়েবসাইটের কথা জানি। প্রোগ্রামিং জ্ঞান না থাকলে আপনি স্টাটিক ওয়েবসাইটে কোনো ইমেজ বা কনটেন্ট বদলে দিতে পারবেন না, এজন্য আপনাকে ওয়েব ডেভেলপারের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। কিন্তু ডাইনামিক সাইট এসব কিছুই করতে হবে না। এই পুরো প্রক্রিয়াটি কোডিং করে করতে গেলে অনেক পরিশ্রম যেমন করতে হবে, তেমনি সময়ও অনেক বেশি লাগবে। কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে করলে সময়ও যেমন বাচবে তেমনি পরিশ্রমও অনেক কম হবে।

কারণ ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে সম্পূর্ণ ডাইনামিক কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম যাতে খুব সহজেই ডাইনামিক্যালি ওয়েবসাইটের কনটেন্ট পরিবর্তন করা যায়। এজন্য কোন কোডিং করতে বা সাইটে কোনো বড় পরিবর্তন করতে হয় না। ওয়েব ডেভলপারদের কাছ থেকে শুধু একবার সাইট ডেভলপ করিয়ে নিতে হবে। এরপর ব্যবহারকারীকে শুধু কনটেন্ট দিতে হবে।

ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে ব্যবহার করব?

ওয়ার্ডপ্রেস দু’ভাবে ব্যবহার করা যায়।

  • ওয়ার্ডপ্রেসের নিজস্ব হোস্ট সার্ভারে- যেখানে ওয়ার্ডপ্রেস স্ক্রিপ্ট বা সিএমএসটি ওয়ার্ডপ্রেসের নিজস্ব সার্ভারে সেটাপ করা আছে। এখানে রেজিস্ট্রার করে সাব-ডোমেইন নিয়ে তা ব্যবহার করা যায়। তবে ইচ্ছেমত কাস্টমাইজ করা যায় না। এটার ঠিকানা হলো- www.wordpress.com. এখানে সাবডোমেইনগুলো হবে এরকম- http://www.techpagebd.wordpress.com
  • নিজস্ব হোস্ট সার্ভারে। মানে স্ক্রিপ্টটি ওয়ার্ডপ্রেসের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে আপনার নিজস্ব সাইটে (ডোমেইন) আপলোড করে ইনস্টল-এর মাধ্যমে সেটাপ করে আপনার ইচ্ছেমতো ব্যবহার করেত পারবেন। ঠিকানা- www.wordpress.org

ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে ডাউনলোড করব?

ওয়ার্ডপ্রেস www.wordpress.org/download থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন।

0 Comments

Ahmed Imran

There is nothing to say about myself

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

8 + 7 =