ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভলপমেন্ট, টিউটোরিয়াল

ওয়ার্ডপ্রেসের ২৫টি সাধারণ ভুল যা এড়িয়ে চলা উচিত (তৃতীয় পর্ব)

25-error-in-wp-3rd-part

১১। কনট্যাক্ট ফর্ম কাস্টমাইজ না করাঃ

প্রায় সব ধরনের ওয়েবসাইটেই কনট্যাক্ট পেইজ থাকে। দেখা যায় সেখানে কনট্যাক্ট ফর্ম ও থাকা বাঞ্ছনীয় তা অনেকে খেয়াল করেন না। অনেকে সেখানে শুধু ইমেইল লিখে রাখেন। এমনকি থিম এর ইমেইলটা পরিবর্তন করার ও প্রয়োজনবোধ করেননা।  মনে রাখতে হবে যে কোন ওয়েবসাইটকেই স্প্যাম প্রটেক্টেট করে রাখা উচিত। কেননা যারা স্পামিং করে তারা বেশিরভাগ সময়ই কনট্যাক্ট ফর্মকে বেছে নেয় স্প্যামিং করার জন্য। তাই কনট্যাক্ট ফর্ম এর জন্য যে প্লাগইন ব্যবহার করব তা যেন বিশ্বস্ত সোর্স থেকে ডাউনলোড করা হয় সেদিকে লক্ষ রাখা উচিত।

১২। গুগল অ্যানালিটিক্স ইন্সটল না করাঃ

ইন্টারনেট দুনিয়ায় আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনি যদি এর সঠিক ভাবে পরিচালনা করতে চান তাহলে আপনাকে কিছু টুলস ব্যবহার করতে হবে। আর গুগল অ্যানালিটিক্স হলো একটি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন টুল। এর মালিক এবং পরিচালনা করে টেক জায়ান্ট গুগল। গুগল অ্যানালিটিক্স একটি ফ্রি ওয়েব বিশ্লেষণ সেবাদান কারী প্রতিষ্ঠান যেটা আপনার ওয়েব সাইটের সকল রিপোর্ট প্রদান করে। গুগল ২০০৫ সালে এই সেবা সবার জন্য চালু করে। বর্তমানে গুগল অ্যানালিটিক্স এখন ইন্টারনেটে বহুল ব্যবহৃত একটি ওয়েব বিশ্লেষণ কিংবা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন টুল। এছাড়াও আরও গুগল ওয়েবমাস্টার টুল এবং গুগল অ্যাডওয়ার্ডস কিওয়ার্ড পল্যানার।  এগুলো গুগল এর ফ্রি টুলস যেখানে আপনি আপনার ওয়েব এর সকল তথ্য পাবেন এবং আপনি এখানে আপনার ওয়েব সাইটের সার্চ ইঞ্জিন র‍্যাঙ্ক করানোর জন্য কি ওয়ার্ড খুজতে পারেন একদম বিনা মূল্যে যেখানে আপনি আপনার মূল্যবান কিওয়ার্ড এর মান্থলি সার্চ, কম্পিটিশন, ইত্যাদি সকল কিছু দেখতে পারবেন।  তাই একজন ওয়েব ডেভেলপার এর কখনই এই বিষয়টা এড়িয়ে যাওয়া উচিত নয়।

 

১৩। মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে পোস্ট লেখা:

আমরা মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের মত সফটওয়্যারে লিখতে অভ্যস্ত। আপনার কম্পিউটার কোন কারণে বন্ধ হয়ে গেলে, পাওয়ার সাপ্লাই চলে গেলে অথবা সেইভ করতে ভুলে গেলে সমস্ত কাজ হারানোর সমূহ সম্ভবনা রয়েছে।

আর ওয়ার্ডপ্রেস পোস্ট এডিটর ব্যবহার করে পোস্ট লিখলে অটো সংরক্ষণ হয়ে যাবে এমনকি যদি আপনি পাবলিশ বাটনে ক্লিক করতে ভুলে যান তাহলেও পোস্টটা ড্রাফটে সেইভ হয়ে থাকবে তাছাড়া আপনি ভুল করে ডিলিট করে ফেললে তা ট্র্যাশ থেকে পুনরায় রিস্টোর করে নিতে পারবেন। তাই পোস্ট লেখার সময় ওয়ার্ডপ্রেস পোস্ট এডিটর ব্যবহার করা উচিত।

১৪। ট্যাগলাইন পরিবর্তন না করা:

ইনস্টল করা ওয়ার্ডপ্রেসে ডিফল্ট ট্যাগলাইন থাকে “Just another wordpress site”।  প্রায়ই নতুন ডেভলপাররা এ বিষয় টা এড়িয়ে যান কিন্তু এটা পরিবর্তন করা খুবই জরুরী। কেননা ইন্সটল করার পরই গুগল এই ট্যাগলাইন ইনডেক্স করে নেয়।  তাছাড়া এই ট্যাগলাইনটি টাইটেল বার এ দেখা যায়। এটা পরিবর্তন করা খুবই সহজ আপনি Settings » General এ গিয়ে ট্যাগ লাইনটি পরিবর্তন করতে পারেন।

১৫। Sample Page ডিলিট না করা:

Google অনুসন্ধান দেখিয়েছে যে ১.১ মিলিয়ন সাইট এখনও তাদের সাইটে Sample Page আছে। প্রতিটি ওয়ার্ডপ্রেসে এ পেইজটি ডিফল্টভাবে দেয়া থাকে। অধিকাংশ লোকই এটি সম্পর্কে জানেন না বা তারা এটি মুছে ফেলতে চান না। কোন সাইটেই অপ্রয়োজনীয় কোন কন্টেন্ট রাখা উচিত নয়। কেননা গুগল সাইটের কন্টেন্ট অনুযায়ী ইনডেক্স করে। এগুলো SEO এর উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। তাই Sample Page টি মুছে ফেলা উচিত।

এই সিরিজের অন্য পর্বগুলোঃ

0 Comments

Md. Shah Jamal Sumon

As a Full Time Web Developer, WordPress & Laravel Specialist Since 2015.

Reply your comment

Your email address will not be published. Required fields are marked*

five × one =